February 24, 2024

TV Bangla New Agency

Just another WordPress site

বেহাল রাস্তা মেরামত ও পানীয় জলের দাবীতে হরিরামপুরে পথ অবরোধ করলো বাসিন্দারা

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার হরিরামপুর ব্লক এর ৮ নম্বর পুন্ডরী গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত কোকিল গ্রামের বাসিন্দারা আজ সকাল আনুমানিক দশটায় হরিরামপুর দৌলতপুর সড়কে পথ অবরোধ করে । তাদের দাবি একটাই এলাকার যাতায়াতের রাস্তা দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে এছাড়াও এলাকার বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত পানীয় জলের টিউবওয়েল গুলিও বেহাল হয়ে পড়ে আছে হুশ নেই প্রশাসনের । বারবার প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েও মিলছে না কোন সূরার পর তাই গ্রামবাসীরা মিলে এই পথ অবরোধ এ সামিল হন । কোকিল বাস স্ট্যান্ড মোড় থেকে মহাখোর যাবার প্রায় দু কিলোমিটার রাস্তা কিছুটা ঢালাই বাকিটা ইটসোলিং হয়ে আছে কিন্তু এই ইটসোলিং রাস্তায় বিভিন্ন স্থানে ছোটখাটো গর্ত হয়ে গেছে । বর্ষার জলে সেই গর্তগুলোতে জল জমে যায় তার ফলে বেড়ে যায় দুর্ঘটনার প্রবণতা । এছাড়া পাঁচ গ্রাম থেকে কাতলামারী প্রায় চার কিলোমিটার কাঁচা রাস্তা এই রাস্তার ধারে ঊষা ডাংগি করঞ্জা বাড়ি বিরাহার কালিমা বাদ এইসব গ্রামের বহু মানুষ এই পথ দিয়ে যাতায়াত করেন । গ্রীষ্মকালে এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করা গেলেও বর্ষাকালে সেই রাস্তার অবস্থা এতটাই দুর্বিষহ হয়ে ওঠে সেটা চোখে না দেখলে বিশ্বাস করা বোধহয় একটু কষ্টকর । এলাকাবাসীর অভিযোগ বিগত দিনে তারা বহুবার গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে রাস্তার বিষয়ে জানিও কোন লাভ হয়নি মিলেছে শুধু আশ্বাস কেটেছে বহুবছর কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি । এক গ্রামবাসী মকলেসুর রহমান জানান আমরা বহুবার প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছি কিন্তু কোন কাজ হয়নি ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় উন্নয়ন হলেও আমাদের এলাকাতে সেভাবে কোন উন্নয়ন হয়নি বা উন্নয়নের ছিটেফোটাও কাজ হয়নি । একদিকে বেহাল রাস্তা অন্যদিকে জলের কষ্ট এই দুই মিলিয়ে আমাদের প্রতিদিনই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় তাই আজ আমরা অন্য কোন পথ না পেয়ে এই পথ অবরোধ এর রাস্তা বেছে নিয়েছি । এদিনের পথ অবরোধের ফলে হরিরামপুর দৌলতপুর রাস্তায় চলাচল কারী বহু গাড়ি টোটো অটো ও মোটরসাইকেল আটকে পড়ে । সমস্যায় পড়তে হয় নিত্যযাত্রীদের পরে হরিরামপুর ব্লক এর বিডিও শ্রীমান বন্দোপাধ্যায় ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছান তার সঙ্গে ছিলেন হরিরামপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মধুমিতা রায় , মাসেদুর রহমান । বিডিও শ্রীমান বন্দোপাধ্যায় ও মধুমিতা রায় যে রাস্তা নিয়ে গ্রামবাসীদের এত ক্ষোভ তার ফলেই পথ অবরোধ পায়ে হেঁটে সেই রাস্তা দেখতে যান সকলে এবং সেই রাস্তার জন্য দশ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করেন এছাড়া ইট সোলিং রাস্তায় যেসব জায়গায় খানাখন্দ হয়ে আছে সেগুলো রাবিশ দিয়ে মেরামত করার আশ্বাস দেন । বিডিওর আশ্বাস পাওয়ার পর অবরোধ উঠে যায় । কিন্তূ গ্রামবাসীদের দাবি এই রাস্তার কাজ শীঘ্রই শুরু না হলে আগামীতে তারা বৃহত্তর আন্দোলনে নামবেন ।