October 24, 2021

TV Bangla New Agency

Just another WordPress site

ব্যান্ডপার্টি বাজিয়ে, আবীর ছিটিয়ে, বৃদ্ধের মৃতদেহ সৎকার, মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল 105 বছর

মালদা, যেকোনো মৃত্যু তার পরিবারের কাছে শোকের কারণ । কিন্তু এ এক অদ্ভুত মৃতদেহের শবযাত্রা। রীতিমতো ডিজে, ব্যান্ড পার্টি বাজিয়ে , আবির ছিটিয়ে, আতশবাজি পুড়িয়ে এক বৃদ্ধার মৃতদেহ সৎকারযের জন্য নিয়ে যাওয়া হল সাদুলাপুর মহাশ্মশানে। মৃতের পরিবারের বক্তব্য, যিনি মারা গিয়েছেন তার নাম সাবিত্রী মন্ডল। বয়স ১০৫।

মৃতের পরিবারের বক্তব্য, সাবিত্রীদেবীর শেষ ইচ্ছা পূরণ করছি । মৃত্যুর আগে তিনি  বলে গিয়েছিলেন তার ম‌ত্যুর পর যেন কোন সৎকার্যে কোনোও খামতি না থাকে। তাই ডিজে বাজিয়ে , আতশবাজি পুড়িয়ে , আবির ছিটিয়ে তাঁকে শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয় সৎকারযের  জন্য। তাই এদিন  শবদাহে কোনো খামতি রাখা হয় নি। সাদুল্লাপুর মহাশ্মশানে আসতেই আতশবাজিতে ঝলমলে হয়ে ওঠে গোটা এলাকা । ডিজে ব্যান্ড পার্টির আওয়াজে গমগম করতে থাকে গোটা এলাকা।

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে,  মৃত বৃদ্ধার নাম সাবিত্রী মন্ডল (১০৫)। পরিবারের লোকেদের দাবি ১০৫ এর থেকে হয়তো বেশি বয়স হবে। কিন্তু ভোটার কাডের হিসাবে ১০৫ বছর বয়স।  তাঁর বাড়ির মোথাবাড়ি থানার গঙ্গাপ্রসাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের দেবীপুর এলাকায় । এদিন শবদাহ করতে আসা মৃতের এক আত্মীয় সুজন মন্ডল বলেন , ওই বৃদ্ধার পরিবারে তিন ছেলে, এক মেয়ে রয়েছে। তিন ছেলে অনিল মন্ডল, সহদেব মন্ডল, বিনয় মন্ডল অনেকদিন আগে মারা গিয়েছেন। এখন একমাত্র জীবিত রয়েছে এক মেয়ে শঙ্করী মন্ডল।  শনিবার সকালে বয়স জনিত কারণে মারা যান সাবিত্রী দেবী । তার শেষ ইচ্ছা ছিল মৃত্যুর পর ঢাকঢোল পিটিয়ে শোভাযাত্রা সহকারে যেন শবদাহ করতে নিয়ে যাওয়া হয়। তাই এই আয়োজন করা হয়েছে।

এদিন প্রায় ৩০০ জন মানুষ ডিজে বাজিয়ে , রঙিন আবির উড়িয়ে, আতশবাজি পুড়িয়ে ওই বৃদ্ধর  মৃতদেহ সাদুলাপুর মহাশ্মশানে নিয়ে আসেন। শশাঙ্গাসন অন্যান্য সব যাত্রীকে সাধারন নেতিবাচক হতচকিত হয়ে যায় এই আয়োজন দেখে।  এরকম শবদেহের শোভাযাত্রা আগে কখনো দেখেনি মালদার মানুষ ।