September 20, 2021

TV Bangla New Agency

Just another WordPress site

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের এইসব মহাশক্তিশালী বিমান, তাক লাগাবে আপনার

রাষ্ট্রপ্রধানরা যখন অন্য দেশে যান, তখন প্রথমেই মাথায় রাখতে হয় তাঁদের সুরক্ষার বিষয়টা। তাই যে কোনও বিমানে উঠে বিদেশ সফরে যেতে পারেন না তাঁরা। তাঁদের জন্য প্রস্তুত থাকে বিশেষ বিমান। নিজের এয়ারফোর্স ওয়ান-এ ভারত সফরে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বাকি রাষ্ট্রপ্রধানদেরও রয়েছে বিশেষ বিমান। কেমন সে সব বিমান? জেনে নেওয়া যাক বিশ্বের এরকমই কিছু প্রেসিডেন্টিয়াল এয়ারক্র্যাফ্ট সম্পর্কে কয়েকটি তথ্য।
ডুমস‌‌ডে প্লেন: এয়ারফোর্স ওয়ানের কথা অনেকেই শুনেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্টের জন্য বিশেষ ভাবে নির্মিত বিমান। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিশ্বের যে কোনও জায়গায় যাওয়ার জন্য আরও একটি বিমান ব্যবহার করেন, আপৎকালীন পরিস্থিতিতে প্রেসিডেন্টকে সম্পূর্ণ সুরক্ষা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত এই বিমান। এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯৯৭ কিমি। বানাতে খরচ হয়েছে ২২ কোটি ডলার।
বোয়িং ৭৬৭-২০০ইআর: জিম্বাবোয়ের প্রেসিডেন্টের জন্য নির্মিত এই বিমান বানাতে খরচ হয়েছে আনুমানিক ২৫ কোটি ডলার।
বোয়িং ৭৪৭-৪০০: চিনের প্রেসিডেন্ট এই বিমানই ব্যবহার করে থাকেন। তবে দেশের অর্থনীতির উন্নতির জন্য, প্রেসিডেন্টের সুরক্ষার জন্য ব্যবহৃত বিমানেই চলাফেরা করতে পারেন সাধারণ মানুষও। চিনের প্রেসিডেন্টের জন্য বোয়িং ৪৭৪-৪০০ বিমান বানাতে খরচ হয়েছে আনুমানিক ২৫ কোটি ডলার। এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯৮২ কিলোমিটার।
এয়ারবাস এ৩৩০: একেবারেই বাণিজ্যিক বিমান। শুধু ভিআইপি জোনেই যা বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে। ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বিদেশ সফর এই বিমানেই করে থাকেন। এই বিমানের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬৬৭ কিলোমিটার।
এয়ারবাস এ৩৩০-২০০: ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বিমান। আনুমানিক ২৭ কোটি ডলার মূল্যের এই বিমানের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯১৩ কিলোমিটার। বিমানের মধ্যেই প্রেসিডেন্টের ব্যক্তিগত রান্নাঘর ও বেডরুম আছে।
এয়ারবাস এ৩৪০-৩১৩এক্স ভিআইপি: জার্মানির চ্যান্সেলরের জন্য নির্মিত এই বিমানের নাম কনরাড অ্যাডেনর। এটি বানাতে খরচ হয়েছে আনুমানিক ৩০ কোটি ডলার। সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯১২ কিলোমিটার।
আইএল-৯৬-৩০০পিইউ: রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মতোই শক্তিশালী তাঁর বিমানও। হাই টেক সুরক্ষা এবং বিলাসবহুল অন্দরমহলের জন্য এই বিমান বানাতে খরচ হয়েছে আনুমানিক ৫০ কোটি ডলার। গতিবেগ সর্বোচ্চ ৯০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা।
সবশেষে বলাই যায়, বিশ্বের শক্তিশালী রাষ্ট্রপ্রধানের জন্য এইসব উচ্চ সুরক্ষার বিমান মোটেও খেলার জিনিস নয়।